[X]
Home / স্বাস্থ্য সেবা / ঘুমের মাঝে এই অদ্ভুত কাজগুলোও আপনিও করেন কি?

ঘুমের মাঝে এই অদ্ভুত কাজগুলোও আপনিও করেন কি?

রাত হলে আমরা ঘুমুতে যাই এটাই স্বাভাবিক। যদি আপনার অনিদ্রা বা ইনসমনিয়া থাকে তাহলে ঘুমুনোর সমস্যা হতে পারে। কিন্তু দেহের স্বাভাবিক নিয়মেই রাত নামলে ক্লান্ত দেহে আমরা ঘুমুতে যাই। ঘুম কেবল বিশ্রামই নয় বরং শরীরের সারাদিনের ধকল, ক্ষতি কাটিয়ে শরীরকে শক্তি যোগায়, অনেকটা সেলফোনের ব্যাটারি রিচার্জের মত। কিন্তু আপনি কি জানেন, যখন আপনি ঘুমিয়ে থাকেন, তখন আপনার অজান্তেই আপনার শরীরে ঘটে অদ্ভুত কিছু ঘটনা? আর সেগুলো আপনার আরামের ঘুম ভাঙ্গিয়ে আপনাকে জাগিয়েও তুলতে পারে।
জেনে নিন এরকম কিছু অদ্ভুত ঘটনা আর সেগুলোর কারণ।
১। অনেক উপর থেকে পড়ে যাবার অনুভূতি
এই অনুভূতিকে বলে, hypnagogic jerk। সাধারণত আপনি যখন গভীর ঘুমে আচ্ছন্ন, সেই সময়েই এটি ঘটে থাকে। ভার্জিনিয়ার মার্থা জেফারসন হাসপাতালের পরিচালক Dr. W. Christopher Winter বলেন, আপনি যখন গভীর ঘুমে এবং আপনার শরীর যখন প্রায় অসার হয়ে আসে, ঠিক তখনই অনেক সময় আপনি অনেক উঁচু থেকে পড়ে যাবার অনুভূতি পেতে পারেন। অনেকটা আকাশ, ছাদ বা পাহাড় থেকে পড়ার মতন। আর তখনই ধড়মড়িয়ে ভেংগে যায় আরামের ঘুমটা। কিন্তু কেন হয় এমন? গবেষকরা এর কারণ সম্পর্কে খুব একটা নিশ্চিত নন। কিন্তু হতে পারে, আপনি অতিরিক্ত ক্লান্ত, মানসিক ভাবে বিপর্যস্ত বা পর্যাপ্ত ঘুম হচ্ছে না। ডঃ উইন্টার বলেন, এর কারণ হতে পারে, আপনার মস্তিস্ক জোর করে ঘুমুতে চাচ্ছে, কিন্তু আপনার শরীর ঘুমের জন্যে প্রস্তুত নয়।
২। ঘুমের মাঝে পঙ্গু অনুভূতি
অনেক সময় এমন কি হয় যে, আপনি সকাল বেলা ঘুম থেকে উঠতে চাচ্ছেন কিন্তু হাত পা কিছুই নাড়াতে পারছেন না এমনকি কথাও বলতে পারছেন না? এরকম পঙ্গু অনুভূতি কয়েক সেকেন্ড থেকে কয়েক মিনিট পর্যন্ত থাকতে পারে, যা রীতিমত ভীতিকর। আপনার মস্তিষ্ক শরীরের আগে জেগে ওঠে এবং শরীর ঘুম ভাঙ্গার জন্যে সচল না হতেই আপনি ঘুম থেকে ওঠার চেষ্টা করায় এমনটা হয়। শরীর ও মস্তিস্কের ঘুম ভাংগার সময়টা একসাথে না হলেই এ সমস্যাটা হয়। এই অনুভূতিকে অনেকে বর্ণনা করেছেন বুকের উপর হাতি বসে থাকার মতন। কেননা অনেকে এই সময়টায় নিঃশ্বাসও নিতে কষ্ট পান। ।
৩। ঘুমের মাঝে হাঁটাহাঁটি
শুনতে বেশ মজার শোনালেও এটা কিন্তু ভয়াবহ হতে পারে, যদি আপনি পাহাড়ে বা সমুদ্রে বেড়াতে গিয়ে থাকেন! ঘুমের মাঝে অনেকে বেশ খানিকটা সময় ধরে কেবল হাঁটাহাঁটিই করেন না। বরং রান্না, খাওয়া, ড্রাইভিংসহ সবই করেন। উইন্টার বলেন, এই সমস্যাটা হয় যখন মস্তিষ্ক পুরোপুরি জাগে না, কিন্তু শরীর জেগে উঠে তার কাজ কর্ম করতে থাকে। এটা হয় কোন ঘুমের ওষুধ, রাতের বেলা কোন ক্ষতিকর ওষুধ খাবার জন্যে। তাই রাতে কোন ওষুধ খাবার আগে এই পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া সম্পর্কে ডাক্তারের কাছে জেনে নিতে হবে।
৪। ঘুমের মাঝে কথা বলা
আমেরিকান একাডেমী অব স্লিপ মেডিসিনের মতে, ৫% প্রাপ্তবয়স্ক মানুষ ঘুমের মাঝে কোন না কোন সময়ে কথা বলেন। সাধারণত ঘুমের মাঝে কথা বলে সর্বোচ্চ ৩০ সেকেন্ড স্থায়ী হয়। এটা সাধারণত ঘুমিয়ে পড়ার ১ বা ২ ঘন্টার মাঝেই হয়, কারণ তখন শরীর ঘুমের এই স্তর থেকে আরেক স্তরে যেতে থাকে, কিন্তু শরীর তখনো শব্দ ও মুভমেন্ট তৈরী করার অবস্থায় থাকে, যেটা পরবর্তীতে স্বপ্ন দেখায় কাজে লাগে।
৫। ঘুমের মাঝেই যৌনক্রিয়া
অনেক সময় অনেকেই ঘুমের মাঝেই সঙ্গীর সাথে যৌনক্রিয়ায় লিপ্ত হন। একে Sexomonia বলে। the University Health Network in Toronto র পরিচালিত একটি গবেষনায় দেখা যায় ৮০০ ব্যক্তির মাঝে ৮% ই এই সমস্যাটি বোধ করেছেন ঘুমের মাঝে। গবেষকরা বলেন, প্যারাসমনিয়ার মতই এতে মস্তিস্ক পুরোপুরি জেগে ওঠার আগে শরীর জেগে ওঠে। এর আরেকটা কারণ হতে পারে, ঘুমের মাঝে আপনি যৌনতা নিয়ে স্বপ্ন দেখছিলেন বা এই আকাঙ্ক্ষা নিয়ে ঘুমুতে গিয়েছিলেন।
৬। একই স্বপ্ন বার বার দেখা
অনেক সময় আমরা কোন একটা নির্দিষ্ট স্বপ্নই বার বার দেখতে থাকি। ডাঃ উইন্টার বলেন, “অনেকগুলো বিষয়ের মাঝে কোনটিকে স্মৃতিতে রাখার আগে সেটিকে পুনর্মূল্যায়ণ ও প্রক্রিয়াজাতকরণের একটা পদ্ধতিই হলো স্বপ্ন।” ধরুন, আপনাকে রাস্তায় ছিনতাইকারী ধরলো এবং আপনার সব কিছু নিয়ে গেলো। এখন হতে পারে আপনি বার বার ঐ ঘটনাটাই নানাভাবে স্বপ্নে দেখবেন। কেননা এই ঘটনার সমাধান আপনার ব্রেইন খুঁজেই যাচ্ছে। বার বার একই স্বপ্ন দেখার ব্যাপারটা কোন বাস্তব ঘটনার সাথে সম্পৃক্ত থাকার সম্ভাবনা বেশী।
ঘুম একটি শারীরবৃত্তীয় প্রক্রিয়া। ঘুমের মাঝে নানা ঘটন-অঘটন ঘটতেই পারে। কোন দুঃস্বপ্ন দেখার পরে জেগে উঠে যেমন স্বস্তি লাগবে, কোন ভালো স্বপ্ন দেখার পর সকালটাই মিষ্টি হয়ে যাবে। তবে সুস্থ থাকার জন্যে ভালো ঘুমের কোন বিকল্প নেই।

আরো পড়ুনঃ

 

Check Also

প্রেগনেন্সি পরবর্তী ১১ টি সত্য যা কেউ আপনাকে বলেনি!

প্রেগনেন্সি পরবর্তী ১১ টি সত্য যা কেউ আপনাকে বলেনি!   আপনার গর্ভজাত ছোট্ট শিশুটির জন্মের …

Loading...