Monday , November 21 2016
[X]
Home / স্বাস্থ্য সেবা / ঘরোয়া ৭ উপায়ে দ্রুত বৃদ্ধি করুন লো ব্লাড প্রেশার

ঘরোয়া ৭ উপায়ে দ্রুত বৃদ্ধি করুন লো ব্লাড প্রেশার

ঘরোয়া ৭ উপায়ে দ্রুত বৃদ্ধি করুন লো ব্লাড প্রেশার

 

ব্লাড প্রেশার বৃদ্ধি বা হ্রাস উভয়ই স্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতিকর। উচ্চ রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণের জন্য ওষুধ খাওয়ার পরামর্শ চিকিৎসকরা দিয়ে থাকেন। একজন মানুষের স্বাভাবিক রক্তচাপ হল ১২০/৮০ মিলিমিটার। রক্তচাপ এর নিচে কমে যায়, তখন লো ব্লাড প্রেশার হয়েছে ধরে নেওয়া হয়। নিম্ন রক্তচাপকে হাইপোটেশন বলা হয়। নিম্ন  রক্তচাপের কারণে মস্তিষ্কে রক্ত ঠিকমত পৌঁছায় না। যার কারণে অনেক সময় মানুষ অজ্ঞান হয়ে পড়তে পারে। তাই কোন কোন সময় নিম্ন রক্তচাপও স্বাস্থ্যের জন্য ভয়ংকর হয়ে উঠে। বিভিন্ন কারণে লো ব্লাড প্রেশার দেখা দিতে পারে। এর মধ্যে উল্লেখ্যযোগ্য কারণগুলো হল বয়স, ডায়াবেটিসের উঠা নামা, হার্টের সমস্যা,  ইনফেকশন, অতিরিক্ত রক্তক্ষরণ, ড্রিহাইড্রেশন ইত্যাদি।

 

লক্ষণ:

মাথা ঘোরা

মাথা ঝিম ঝিম করা

অজ্ঞান হয়ে যাওয়া

শ্বাস কষ্ট

বিষণ্ণতা

মনোযোগের অভাব

তৃষ্ণা পাওয়া

দুর্বল লাগা ইত্যাদি।

সাধারণত নিম্ন রক্তচাপে ওষুধের পরিবর্তে ডায়েটের উপর বেশি জোর দেওয়া হয়। নিম্ন রক্তচাপ সারিয়ে তোলার কিছু ঘরোয়া উপায় নিয়ে আজকের এই ফিচার।

 

১। পানি

নিম্ন রক্তচাপ সারিয়ে তোলার সবচেয়ে কার্যকরী উপায় হল পানি। অনেক সময় পানি শূন্যতার কারণে নিম্ন রক্তচাপ দেখা দিতে পারে। অতিরিক্ত গরম, বমি হওয়া অথবা অন্য যেকোন কারণে শরীরের পানি শূন্যতা দেখা দিতে পারে। তখন রক্তচাপ কমে যায়। এইসময় প্রচুর পানি পান অথবা পানি জাতীয় খাবার খেলে রক্তচাপ বৃদ্ধি পায়।

 

২। লবণ এবং লবণ পানি পান

উচ্চ রক্তচাপে লবণ খাওয়া নিষেধ থাকে। লো ব্লাড প্রেশার দেখা দিলে লবণ এবং লবণ জাতীয় খাবার খাওয়া উচিত। সোডিয়াম রক্তচাপ দ্রুত বৃদ্ধি করে। তাই লবণযুক্ত খাবার খেয়ে রক্তচাপ বৃদ্ধি করতে পারেন। এছাড়া লবণ পানি পান করতে পারেন। এক গ্লাস পানিতে আধা চা চামচ লবণ মিশিয়ে নিন। এটি প্রতিদিন দুই গ্লাস করে পান করুন।

 

৩। কিশমিশ

নিম্ন রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে কিশমিশ প্রাচীনকাল থেকে  ব্যবহার হয়ে আসছে। ৩০-৪০ টি কিশমিশ এক কাপ পানিতে সারা রাত ভিজিয়ে রাখুন। পরের দিন সকালে খালি পেটে এটি খান। কিশমিশের সাথে কিশমিশ ভেজানো পানিও পান করুন। এভাবে কয়েক সপ্তাহ কিশমিশ খান। কিছুদিনের মধ্যে প্রেশার নিয়ন্ত্রণে চলে আসবে।

 

৪। শরীর ঠান্ডা রাখুন

অনেক সময় গরমের কারণে প্রেশার লো হতে পারে। শরীর ঠান্ডা রাখার চেষ্টা করুন। সবচেয়ে ভাল হয় কিছু বরফের কুচি আইস প্যাকে ভরে ঘাড়ে রাখুন। এটি আপনার শরীর ঠান্ডা করে দেবে নিমিষে।

 

৫। শাক সবজি গ্রহণ

তাজা শাক সবজি রক্ত চাপ স্বাভাবিক রাখতে সাহায্য করে। ভিটামিন ও মিনারেলের ঘাটতির জন্য নিম্ন রক্তচাপের সমস্যা হতে পারে। ফলিক এসিড ব্লাড প্রেসার বৃদ্ধিতে সাহায্য করে। সবুজ শাক-সবজিতে প্রচুর ফলিক এসিড থাকে। যা লো ব্লাড প্রেশার স্বাভাবিক রাখে।

 

৬। কফি

দুধ চিনি ছাড়া ব্ল্যাক কফি ব্লাড প্রেশার দ্রুত বৃদ্ধি করে দিয়ে থাকে। ১ থেকে ২ কাপ ব্ল্যাক কফি প্রতিদিন পান করুন। আপনি যদি বুঝতে পারেন আপনার মাথা ঘুরাছে বা শরীর খারাপ লাগছে তবে ব্ল্যাক কফি খেয়ে নিন। এটি সাথে সাথে প্রেসার নিয়ন্ত্রণ করবে। আপনার যদি অন্য কোন শারীরিক সমস্যা থাকে, তবে চিকিৎসকের পরামর্শ নিন।

 

৭।  ব্যায়াম

রক্তচাপ স্বাভাবিক রাখতে ব্যায়াম বেশ কার্যকর। ব্যায়াম হার্টে রক্ত চলাচল নিয়মিত রাখে। লো ব্লাড প্রেশার দেখা দিলে খাবার খাওয়ার সাথে শারীরিক পরিশ্রম করা উচিত।

লিখেছেন: নিগার আলম

তথ্যসূত্র: প্রিয়.কম

 

আরো পড়ুনঃ

 

Content Protection by DMCA.com

Check Also

জেনে নিন স্ট্রবেরীর অসাধারণ ৭ স্বাস্থ্যগুণ!

জেনে নিন সুস্বাদু স্ট্রবেরীর অসাধারণ ৭ স্বাস্থ্যগুণ!

জেনে নিন সুস্বাদু স্ট্রবেরীর অসাধারণ ৭ স্বাস্থ্যগুণ!   লাল রঙের ছোট ফল স্ট্রবেরি। বিদেশী এই …

Loading...