১। শসা, আদা, লেবুর ডিটক্স

  • ১/৩ কাপ পানি
  • ১/২ টা লেবু
  • ১ চা চামচ আদা কুচি
  • ১টি শসা
  • ১ গুচ্ছ পার্সলে পাতা

 

পানি, শসা, আদা কুচি, পার্সলে পাতা দিয়ে ব্লেন্ডারে ব্লেন্ড করে নিন। খুব বেশি পাতলা যেন না হয় সেদিকে লক্ষ্য রাখবেন। প্রতিদিন ঘুমাতে যাওয়ার আগে এই পানীয় পান করুন। ১০ দিনের মধ্যে পেটের মেদ অনেকখানি কমে যাবে।

 

জেনে নিন, বিয়ে প্রসঙ্গে ১০টি কঠিন সত্য। বিয়ের পূর্বে যেগুলো আপনাকে অবশ্যই জানতে হবে!

 

 

এই পানীয়টি দেহের টক্সিন দূর করে। এটি মেটাবলিজম বৃদ্ধি করে ওজন কমাতে সাহায্য করে। দেহের অভ্যন্তরীণ কোন ইনফেকশন থাকলে তাও দূর করে দিয়ে থাকে।

 

বিঃ দ্রঃ- অনেকেই পার্সলে পাতাকে ধনে পাতা মনে করেন; তবে ধনেপাতা আর পার্সলে পাতা দুটো এক জিনিস নয়। ধনেপাতা বা সিলানট্রো বা করিয়ান্ডার তো সবাই চেনেন। আর পার্সলে হলো মৌরি বা মিস্টি শজ বা গোয়ামুরি। আমাদের দেশে শীতকাল ছাড়া এই দুটোর কোনোটাই চাষ করা হয়না বলে বছরের অন্যান্য সময় এগুলো পাওয়া যায়না। তবে, শীতকালিন দেশগুলোতে এগুলো মোটামুটি সারা বছর-ই সহজলভ্য। সেইসব দেশে পার্সলে পাতা শুকনো (ড্রায়েড) অবস্থায়-ও পাওয়া যায়। ধনেপাতার চেয়ে পার্সলে পাতার ফ্লেভার অনেক বেশী স্ট্রং। তাই, অনেকে পার্সলে পাতা বেশী ইউজ করে। পার্সলে পাতা সুপার শপ গুলোতে পাওয়া যায়। নিচের ছবিতে ধনেপাতা আর পার্সলে পাতা দুটোর পার্থক্য দেখে নিন!

 

Coriander-vs-Parsley

 

২। নাশপাতি ডিটক্স

  • ১টি নাশপাতি
  • একটি লেবু
  • একটি ছোট আকৃতির শসা
  • এক গুচ্ছ পালং শাক

 

নাশপাতি, লেবুর রস, শসা এবং পালং শাক মিশিয়ে ব্লেন্ডারে ব্লেণ্ড করে নিন। রাতে ঘুমাতে যাওয়ার আগে নিয়মিত এটি পান করুন। এক সপ্তাহের মধ্যে আপনার পেটের মেদ কমে যাবে। এটি পেটের মেদ কমানোর পাশাপাশি দেহের সার্বিক ওজন কমাতে সাহায্য করে। এই পানীয়টি মেটাবলিজম বৃদ্ধি করে ক্ষুধা দমন করে দেয়। পালং শাক শরীরের প্রদাহ দূর করে হজমশক্তি বৃদ্ধি করে দেয়।

 

 

আরো পড়ুনঃ